শিক্ষকরা চাকরিতে দুইটির বেশি উচ্চতর গ্রেড পাবেন না

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:20 AM, 27 July 2020
শিক্ষকদের গ্রেডের বিষয়টি স্পষ্ট করতে গিয়ে সমস্যা আরও জটিল হলো

বিএড স্কেল পাওয়ার ১০ বছর পর উচ্চতর গ্রেড পাবেন এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। বিএড স্কেল শিক্ষাগত ডিগ্রির জন্য অর্জিত হলে উচ্চতর গ্রেড হিসেবে গণ্য হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষকরা চাকরিতে দুইটির বেশি উচ্চতর গ্রেড পাবেন না। এছাড়া এমপিও নীতিমালায় শিক্ষকদের দুইটি উচ্চতর গ্রেড পাওয়ার কথা বলা হলেও দ্বিতীয় উচ্চতর গ্রেড নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন

জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে স্পষ্টীকরণ চিঠিটি অগ্রায়ন করে শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। ১০ বছর পূর্তিতে শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার আদেশ জারি করা হলেও বিএড স্কেল প্রাপ্ত শিক্ষকরা উচ্চতর গ্রেড পাবেন কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। কারণ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো প্রথম স্পষ্টীকরণে বলা হয়েছিল, ‘কোন শিক্ষক পদোন্নতি বা টাইম স্কেল বা উচ্চতর স্কেল না পেয়ে থাকলে তিনি চাকরির ১০ বছর

পুর্তিতে উচ্চতর গ্রেড পাবেন’। মঙ্গলবার অতিরিক্ত সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন জানান, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ থেকে সে চিঠির জবাব এসেছে। স্পষ্টীকরণ চিঠিটি অগ্রায়ন করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। গত ১২ জুলাই অর্থ বিভাগের উপসচিব আছমা আরা বেগম স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকরা বিএড ডিগ্রি অর্জন সাপেক্ষে ১০ম গ্রেড প্রাপ্ত হওয়ার তারিখ থেকে গণনা করে

এমপিও নীতিমালা অনুসারে ১০ বছর সন্তোষজনক চাকরির পুর্তিতে উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্ত প্রাপ্য হবেন। তবে তারা সমগ্র চাকরি জীবনে দুইটির বেশি উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্ত হবেন না। বিএড ডিগ্রি প্রাপ্তি জনিত এক্ষেত্রে একটি উচ্চতর স্কেল হিসেবে বিবেচিত হবে জানা গেছে, ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দ থেকে টাইমস্কেল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কিন্তু এ নিয়মে বঞ্চিত হচ্ছেন কয়েক লাখ এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী। তাদের বিষয়টি মাথায় রেখে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের ‘টাইমস্কেলের’ পরিবর্তে ‘উচ্চতর

গ্রেড’ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ্রর মার্চে শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার ঘোষণা দেয় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। সে বছরের ২৫ নভেম্বর এমপিও কমিটির সভায় সর্বসম্মতিতে শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এমপিও নীতিমালা ১০ বছর পূর্তি এবং ১৬ বছর পূর্তিতে উচ্চতর গ্রেড দেয়ার কথা ছিল। তবে বিষয়টি নিয়ে কিছুটা কনফিউশন থাকায় গত মার্চ মাসে অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে বিষয়টির স্পষ্টীকরণ ব্যাখ্যা চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ৩১ মে

বিষয়টি স্পষ্ট করে চিঠি পাঠিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। চিঠিতে অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, চাকরির ১০ বছর পূর্তিতে শিক্ষকরা পদোন্নতি বা টাইম স্কেল বা উচ্চতর স্কেল না পেয়ে থাকলে জাতীয় পে স্কেল অনুযায়ী উচ্চতর স্কেল পাবেন। তবে, চাকরি ১৬ বছর পূর্তিতে শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির নিয়ে আদালতে একটি মামলা চলমান আছে। তাই এ বিষয়ে তাদের কিছুই করার নেই। তথ্যসূত্রঃ ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :