৩৮তম বিসিএসে অডিট এন্ড একাউন্টস ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত সফল ভাইভা অভিজ্ঞতা

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:50 AM, 10 July 2020
৩৮তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারপ্রাপ্ত সোহেলের ৪০-৪৫ মিনিট ভাইভার অভিজ্ঞতা

সফল ভাইভা অভিজ্ঞতা জেনারেল ক্যাডার ভাইভা বোর্ডঃ বিজ্ঞ সদস্য জনাব শাহজাহান আলী মোল্লা
পছন্দ ক্রমঃ এডমিন, পুলিশ, অডিট, ট্যাক্স …… সিরিয়ালঃ ৭ম সময়ঃ ২০-২৫ মিনিট
(দরজা খুলে ভিতরে ঢুকতেই সালাম দিলাম। সামনে এগিয়ে যেতেই স্যার বসতে বললেন। প্রথম বিসিএস ভাইভা হওয়াতে প্রচন্ড টেনশন কাজ করছিল।)
স্যারঃ আরিফ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়?
আমিঃ জি স্যার
স্যারঃ এডমিন চাচ্ছেন?
আমিঃ জি স্যার

স্যারঃ একজন ডিসির কী কী যোগ্যতা থাকতে হয়? ( কোন introduce yourself বা অন্য পরিচয়মূলক কিছুই জিজ্ঞাসা করলেন না। যা মুখস্ত করে গিয়েছিলাম, সব মাঠে মারা গেল! )
আমিঃ বললাম।
স্যারঃ প্রশাসনে কাজ করার জন্য আপনার কী ধরণের যোগ্যতা রয়েছে?
আমিঃ বললাম।
স্যারঃ কখনও ডিসি অফিসে গিয়েছেন?
আমিঃ ঢাকা ডিসি অফিসে গিয়েছিলাম একবার কোন একজনের সাথে দেখা করতে। এছাড়া কখনো যাওয়া হয়নি।
স্যারঃ তার মানে কোন সার্ভিস নিতে কখনো যাননি?

আমিঃ না স্যার। (স্যারকে সন্তুষ্ট মনে হল না)
এক্স ১ঃ আচ্ছা Sociology শব্দের উৎপত্তি কীভাবে হল?
আমিঃ এটা জানা ছিল। কিন্তু হঠাত মাথায় আসছিল না। সরি বললাম বিনয়ের সাথে।
স্যারঃ এরপর স্যার আমার বিষয় নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন করলেন পর পর।
আমিঃ সব গুলোই পারলাম (বেসিক প্রশ্ন ছিল)
স্যারঃ বাংলাদেশে সামাজিক নিরাপত্তার কতটি কার্যক্রম চালু আছে?
আমিঃ স্যার, সঠিক সংখ্যাটি আমার জানা নেই। তবে লিখিত পরীক্ষার সময় এরকম ৮-১০ টি কার্যক্রম পড়েছিলাম।
স্যারঃ ৮-১০টা?? যেমন বলেনতো কয়েকটা।

আমিঃ বললাম
স্যারঃ দেশে এরকম ১০০টি কার্যক্রম আছে!
আমিঃ !!!! (কিছুটা বিস্ময়ের সাথে মাথা নাড়ালাম।)
এক্স-২ঃ আপনার উপজেলার ইউএনও এর নাম কী?
আমিঃ বললাম।
এক্স-২ঃ এসি ল্যাণ্ড এর নাম?
আমিঃ সরি বললাম। (আমি জাতীয় তথ্য বাতায়নে খুজে ছিলাম। কিন্তু উনার নাম পাইনি। তাই বলতে পারিনি)
এক্স-২ঃ গ্রামে-টামে যান না নাকি?
আমিঃ স্যার, আমার জন্ম এবং বেড়ে ওঠা ঢাকাতেই। তাই খুব বেশি যাওয়া হয় না বললাম।
এক্স-২ঃ তারপরও এটা আপনার জানা উচিত ছিল।
আমিঃ (বেশ বিনয়ের সাথে দুঃখ প্রকাশ করলাম)

এক্স-২ঃ এগারসিন্দু দুর্গ কোথায়? গিয়েছেন কখনও?
আমিঃ বললাম
এক্স-২ঃ আমার বিষয় নিয়ে ২-১ টি প্রশ্ন করলেন।
আমিঃ বললাম
স্যারঃ আপনি চেয়ারের পিছনে গিয়ে দাড়ান।
আমিঃ উঠে গিয়ে দাড়ালাম।
স্যারঃ মনে করুন, আপনি নড়াইলের (এটা আমার জেলা নয়) ডিসি। আপনি কোন একটা স্কুলের অনুষ্ঠানে গিয়েছেন। আপনার সামনে স্কুলের ছেলেমেয়েরা বসে আছে। তাদেরকে সচেতন করতে তাদের উদ্দেশ্য একটা মাদকবিরোধী বক্তব্য দিন।
আমিঃ বেশ ভাল বললাম। প্রায় ৫-৬ মিনিটের মত বলেছিলাম। (আগের ভাইভা অভিজ্ঞতা দেখে এটা নিয়ে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম তবে, টপিক কমন পড়েনি)

স্যারঃ ৫ মিনিট পর স্যার আমাকে থামালেন। স্যার এতক্ষন আমাকে বেশ ভালভাবে লক্ষ্ করছিলেন এবং কী যেন লিখছিলেন। তারপর বললেন, আপনি ভালই বলেছেন, তবে এই দুটো পয়েন্ট বলেন নি (২ টা পয়েন্ট বললেন)
এক্স-১ঃ স্যার ওকে তো আপনি থামিয়ে দিয়েছেন। ওকে আরো কিছুক্ষণ বলতে দিলে হয়ত এগুলো বলে দিত। (এক্স-১ স্যারকে বেশ সন্তষ্ট মনে হল, এক্স ২ কেও সন্তুষ্ট মনে হল, তবে চেয়ারম্যান স্যার গুরুগম্ভীর ছিলেন)
আমিঃ বিনয়ের সাথে সবার দিকে তাকাচ্ছিলাম।
এক্স-২ঃ WIPO কী?
আমিঃ বললাম

এক্স-২ঃ এই রুমের মধ্যে কোন জিনিসটার সাথে এর সম্পর্ক আছে?
আমিঃ পারলাম না, সরি বললাম।
স্যারঃ আচ্ছা ঠিক আছে। আপনি আসুন।
আমিঃ সালাম দিয়ে বের হয়ে আসলাম।
(ভাইবার প্রথম দিকে টেনশন কাজ করলেও সময় বাড়ার সাথে সাথে বেশ সাবলীল হয়ে গিয়েছিলাম। উল্লেখিত প্রশ্নগুলো ছাড়াও আরও কিছু প্রশ্ন ছিল, বিষয়ভিত্তিক প্রশ্ন বেশি করা হয়েছিল। সবগুলো এই মুহূর্তে মনে পড়ছেনা। তবে, বোর্ড ফ্রেণ্ডলি ছিল)

আরিফুজ্জামান খান
সমাজবিজ্ঞান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
অডিট এন্ড একাউন্টস ক্যাডারে, মেধায় সুপারিশপ্রাপ্ত

তথ্যসূত্রঃ Zakir’s BCS specials

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :