৩৮তম বিসিএসে কর ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত সফল ভাইভা অভিজ্ঞতা

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:40 AM, 10 July 2020

সফল ভাইভা অভিজ্ঞতা Rifat Reza ১০/১২/২০১৯ শ্রদ্ধেয় কাজী সালাহউদ্দিন আকবর স্যারের বোর্ড
সিরিয়াল-৫ নম্বর সময়কালঃ ৩০মিনিট +আমার মনে হয়, ভাইভাতে আসলে কি ঘটে সেটা লিখে পুরোপুরি বোঝানো সম্ভব না। ভাইবা অনেকটা টকশোর মতো। তারপরও চেষ্টা করতেসি…চেয়ারম্যান স্যার সার্টিফিকেট দেখতে দেখতে বললেন ,রিফাত রেজা, তোমার নামের মধ্যে অ্যালিটারেশন আছে, তাই না?
আমি অ্যালিটারেশন ওয়ার্ডটা ঠিকমতো শুনতে পাইনি, বললাম-সরি স্যার। স্যার বললেন, সাহিত্য-টাহিত্য পড় না মনে হয়। এরপর বললেন,প্রথম চয়েস-ফরেন অ্যাফেয়ার্স, Okay, Introduce Yourself……
বললাম। কোথাও থামান নাই, আরো বললে আরও শুনতেন মনে হইসে ( অনুরোধ- এটা ভালোমতো prepare করবেন,নিজের মতো করে ,কপি-পেস্ট টাইপ না)

এক্সটারনাল-১ স্যারঃ

Why Foreign affairs is your first Choice?
-বললাম।

What is the difference between Quantum Computer and Digital Computer? এই প্রশ্নের রেসপন্সে চেয়ারম্যান স্যার এবং এক্সটারনাল-১ স্যার দুইজনেই বেশ খুশি হইসিলেন মনে হইসে (অনুরোধ- নিজের অনার্সের পঠিত বিষয় সম্পর্কিত জিনিস ভালোভাবে পড়বেন)

এক্সটারনাল-২ স্যারঃ
Introduce Yourself এ একটা লাইন বলসিলাম এরকম –My family consists of five members, my parents and we, three siblings. এই জায়গাটা থেকে স্যার প্রশ্ন করলেন- বলো তো, আমরা ২ ভাই,১ বোন-এটার ইংরেজি কি হবে ?
এইখানে কিছুক্ষণ প্যাঁচাপ্যাঁচি,টকশো হইলো…

চেয়ারম্যান স্যারঃ
একজন ডিপ্লোম্যাট এর কি কি গুণ থাকতে হয়, বলো দেখি…
স্যার নিজে কিছু বললেন,আমাকে দিয়ে কিছু বলাইলেন…এই জায়গাটা ইন্টারআক্টীভ ছিল।
-What is the relationship between your subject and foreign affairs?

-বললাম ।
পররাষ্ট্র ক্যাডারে যেয়ে দেশের উন্নয়নে কিভাবে কাজ করতে পারি এই সম্পর্কিত আলোচনা চললো। আমি বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের স্কলারশিপের ব্যবস্থার কথা বলায় দেশের শিক্ষা-ব্যবস্থা নিয়ে স্যাররা কিছুক্ষণ কথা বলসেন।
একজন বিদেশির সাথে বাংলাদেশের ইকোনোমিক কন্ডিশন নিয়ে কিভাবে কথা বলবো তার একটা ডেমো দিতে বলসেন। আমি জিডিপি দিয়ে শুরু করায়, চেয়ারম্যান স্যার আর এক্সটারনাল-১ স্যার বলসেন আরও ক্যাজুয়ালি বলতে…

এক্সটারনাল-২ স্যারঃ
সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম কণা কোনটি ?
এখানেও কিছুক্ষণ টকশো হইসে … quark, সত্যেন বোস, CERN ,touch screen ইত্যাদি সম্পর্কিত কথোপকথন হইসে।
আমি সত্যেন বোসের বাড়ি বাংলাদেশের কোথায় বলতে পারি নাই, CERN কোথায় অবস্থিত- বলসিলাম ইউরোপে,এক্সেট দেশের নামটা মনে পড়তেসে না …
চেয়ারম্যান স্যার মৃদু ধমকের সুরে বললেন -মনে পড়তেসে না আবার কী? সুইজারল্যান্ডে …
জী স্যার বলে নিজে থেকেই CERN এর কাজ নিয়ে একটু বললাম।স্যাররা খুশিই হলেন, মনে হইলো……

চেয়ারম্যান স্যারঃ
ধরো,আমি একজন ফরেইন ইনভেসটর, আমাকে বাংলাদেশে ইনভেস্ট করতে কিভাবে কনভিন্স করবা ? (ইংরেজিতে )
-বললাম।

এক্সটারনাল-১ স্যারঃ
বাংলাদেশের কোন কোন জেলায় ভ্রমণ করসি, বর্তমানে কোথায় থাকি,( রামপুরা থাকি শুনে চেয়ারম্যান স্যার বললেন রসিকলালের মিষ্টির দোকান চিনি কিনা),বাবা কি করেন ইত্যাদি…
এক্সটারনাল-2 স্যার হাইট,চুল নিয়ে কথা বললেন ।

চেয়ারম্যান স্যার সার্টিফিকেট ফেরত দিতে দিতে বলেলন-Have a nice day, Rifat.
বাসায় মা-বাবা,রিলেটিভরা ভাইভা কেমন হইসে ,বোর্ড কেমন ছিল জিজ্ঞেস করলে কি বলবা? Are you satisfied?
ওই সময় মাথায় যা চলতেসিলো তাই বললাম, I am satisfied with the board but I am not satisfied with my performance. (ভাইবা টায় আরও ভালো করতে পারতাম মনে হচ্ছিল )
চেয়ারম্যান স্যার বললেন একজন ডিপ্লোম্যাট এর Credibility এই গুণটাও থাকতে হয়। এরপর It’s okay বললেন । ভাইবা শেষ হল 

রিফাত রেজা
ইইই, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
সহকারী কমিশনার(কর)এ সুপারিশপ্রাপ্ত
করে মেধাক্রম-১০।

তথ্যসূত্রঃ Zakir’s BCS specials

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :