অক্সিজেন সিলিন্ডারসহ ছেলেকে আটকে রাখলো পুলিশ, মারা গেলেন বাবা

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  02:08 PM, 09 July 2021

করোনা উপসর্গ নিয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন থাকা বাবার জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে যাচ্ছিলেন তার ছেলে। এ সময় মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকার ঠুনকো অভিযোগে তাকে আটকে রাখেন পুলিশের এএসআই সুভাষ চন্দ্র। দু’ঘণ্টা পর ছেলেকে ছেড়ে দিলেও ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। ততক্ষণে অক্সিজেনের অভাবে না ফেরার দেশে পারি জমিয়েছেন তারা বাবা জব আলী মোড়ল (৬৫)।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বৈচনা গ্রামে ওই বৃদ্ধা মারা যান। আর তার ছেলেকে শহরের ইটাগাছা এলাকায় আটকে রাখে পুলিশ।বৃদ্ধ’র ছেলে ওলিউল ইসলাম জানান, আমার বাবার করোনা উপসর্গ রয়েছে। চিকিৎসকের পরামর্শে তিাকে বাড়িতেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। বৃহস্পতিবার তার শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়ায় আমি অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনতে যাই। ফেরার পথে পুলিশ আমাকে আটকে রাখে। এ সময় আমার বাবা অক্সিজেনের অভাবে মারা যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইটাগাছা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই সুভাষ চন্দ্র বলেন, অক্সিজেন সিলিন্ডাার নিয়ে একটি মোটরসাইকেল দ্রুত চলে যাচ্ছিল। এ সময় তাকে আটকে কাগজপত্র দেখতে চাওয়া হয়। কাগজ দেখাতে না পারায় তাকে ইজিবাইকে করে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে চলে যেতে বলেছিলাম। তবে সে যায়নি। বিষয়টি ট্রাফিক ইন্সপেক্টরকে জানালে তিনি তাকে ছেড়ে দিতে বলেন। পরে শুনলাম তার বাবা মারা গেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) সজিব খান গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা বিষয়টি জেনেছি। অভিযুক্ত এএসআই সুভাষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সূত্রঃ নিউজ২৪বিডি

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :