অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হবে যেভাবে

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  07:29 PM, 18 October 2020

করোনা পরিস্থিতিতে এবার দেশের স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনলাইনের মাধ্যমে স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা চান উপাচার্যরা। এজন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির (বিডিইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূরের নেতৃত্বে তৈরি করা একটি মোবাইল বেসড সফটওয়্যার প্রস্তাব করেছে উপাচার্যদের সংগঠন।শনিবার সন্ধ্যায় উপাচার্যদের

সংগঠন ‘বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের’ ভার্চুয়াল এক সভায় এ প্রস্তাব আসলে তাতে উপাচার্যরা সম্মত হন। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সঙ্গে আলোচনা করে। মোবাইল বেইজড এ সফটওয়্যারটির উদ্ভাবক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, পরীক্ষার্থীদের কোন অনিয়মের আশ্রয়ের সুযোগ থাকবে না।

সফটওয়্যারটি মোবাইল বেইজড একটি অ্যাপস, এটি অফলাইন এবং অনলাইন-দুটোতেই কাজ করবে। যখন শিক্ষার্থীরা অ্যাপসটি ওপেন করবে তখন আমরা তার মোবাইলের ক্যামরার কন্ট্রোলটা নেব এবং সাথে সাউন্ডেরও কন্ট্রোলও। এছাড়াও তখন সে ফোনে আর কোন অ্যাপস অন করতে পারবে না এবং কোন কাজ করতে পারবে না। যতক্ষণ না আমাদের এই

অ্যাপসটি অন থাকবে। তিনি জানান, শিক্ষার্থীরা অনলাইনে থেকে যখন অ্যাপসটি অন করবে তখন আমরা তাদের লাইভ মনিটরিং করতে পারবো। আর অফলাইনে থাকলে ছবি এবং সাউন্ড রেকর্ড করা থাকবে। এটা পরবর্তীতে আমাদের সার্ভারে চলে আসবে। তখন আমরা বুঝতে পারবো সে নকল করেছে কিনা। এটা হচ্ছে সিম্পল কনসেপ্ট। এই অ্যাপসের মাধ্যমে

এমসিকিউ ও লিখিত টাইপ দু’ভাবে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব বলে জানান অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর। তিনি বলেন, এমসিকিউ টাইপের পরীক্ষা হলে অ্যাপসটিতে ঠিক মার্ক দেবে। আর লিখিত টাইপ পরীক্ষায় খাতায় লিখে তারপর ছবি তুলে অ্যাপসটিতে আপলোড করতে হবে। আপলোড করার পর সেটি আমাদের সার্ভারে চলে আসবে। ধরেন ৫টি খাতায় লিখছে, তখন ৫টি পেজ

ছবি তুলে পাঠিয়ে দেবে। এভাবে লিখিত টাইপ পরীক্ষা নেয়া যাবে। এদিকে, অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূরের নেতৃত্বে তৈরি করা মোবাইল বেইজড এই সফটওয়্যারটির প্রশংসা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা। জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভাপতি এবং চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, অনলাইনে পরীক্ষার বিষয়ে বঙ্গবন্ধু

শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্যের তৈরি করা একটি সফটওয়্যার উপস্থাপন করা হয়েছে। অনেক উপাচার্য তাতে ‘কনভিন্স’ হয়েছেন। তবে সরকার ও ইউজিসির সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। জাতীয়

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, বৈঠকে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ নূরের উদ্ভাবিত সফটওয়্যার ব্যবহারের প্রস্তাব এসেছে। এ প্রস্তাবে সবাই প্রশংসা করেছেন।

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :