এএসপি পরিচয়ে বিয়ে; পরে জানলেন তিনি দুই সন্তানের জনক ও বাদামবিক্রেতা

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:22 PM, 25 June 2021

বগুড়ায় সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয়ে কলেজপড়ুয়া এক ছাত্রীকে বিয়ে করে প্রতারণার অভিযোগে দুই সন্তানের জনক এক প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গ্রেফতার ব্যক্তির নাম আব্দুল আলিম (৩২)। তিনি পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ উপজেলার ডাকিয়া পারা গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে ও পেশায় একজন বাদামবিক্রেতা।

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রতারণার শিকার ওই কলেজছাত্রীর বাড়ি বগুড়া সদরের একটি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সদর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) বেদার উদ্দিন জানান, আলিমের সঙ্গে কলেজপড়ুয়া ওই তরুণীর মোবাইলে মিসকলের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ১৪ থেকে ১৫ মাস প্রতারক নিজেকে পুলিশের এএসপি পরিচয় দিয়ে প্রেম চলমান রাখেন। চলতি মাসের ১৮ তারিখে আলিম তরুণীর বাড়িতে এসে তিন লাখ ৫০ হাজার ৫০০ টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন।

আলিম তরুণীর পরিবারকে জানান, তিনি রংপুর জেলার সৈয়দপুর নামের একটি পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত। একপর্যায়ে তরুণীর পরিবারের সন্দেহ হলে বৃহস্পতিবার তাকে জেরা করেন। পরে আলিম স্বীকার করেন তিনি পেশায় বাদামবিক্রেতা। তবে তিনি পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করেন। পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদ জানান, ঘটনাটি দুঃখজনক। প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। সূত্রঃ জাগো নিউজ

সবার আগে আপডেট পেতে পেইজে লাইক দিন

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :