তিনটি বিশ্বকাপে জয়, পেলের পাশে আর কেউ নেইa

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:51 AM, 30 December 2022

ফুটবল ইতিহাসে পেলেই একমাত্র ব্যক্তিত্ব যিনি তিনবার দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জিতেছেন। মাত্র ১৬ বছর বয়সে খেলেছেন ব্রাজিলের জাতীয় দলে। আর ১৭ বছর বয়সে ১৯৫৮ বিশ্বকাপে ৪ ম্যাচে ৬ গোল করে ব্রাজিলকে জিতিয়েছেন বিশ্বকাপ। হয়ে গেলেন সর্বকণিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপজয়ী। ব্রাজিলের এই কিংবদন্তি না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন। পেলে চলে গেলেন ঠিক, কিন্তু ফুটবল যতদিন থাকবে তিনি ততদিন অমরই থেকে যাবেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত একটায় সাও পাওলোর আলবার্ট আইনস্টাইন হাসপাতালে ক্যানসার আক্রান্ত ব্রাজিলের কিংবদন্তি এই ফুটবলার শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন পেলের মেয়ে কেলি নাসিমেন্তো।

পুরো নাম এদসন আরান্তেস দো নাসিমেন্তো। তবে বিশ্বের বুকে লাখো কোটি ফুটবলপ্রেমীর কাছে তিনি পেলে নামেই পরিচিত। তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ফুটবল বিশ্বের রেকর্ড এক হাজার ২৮১টি গোল, যা আজও ভাঙতে পারেনি কেউ।

ফুটবলকে সারাবিশ্বে জনপ্রিয়তা করেছেন তার মধ্যে অন্যতম পেলে। এ জন্য তাকে ফুটবলের রাজা ও কালো মানিক উপাধি দেওয়া হয়েছে। একমাত্র ফুটবলার হিসেবে এক হাজার গোলের মালিক পেলে। ফুটবল ইতিহাসে পেলেই একমাত্র খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপ জয়ের রেকর্ড আছে তিনটি। ১৯৫৮, ’৬২ ও ‘৭০-এই তিনবার ব্রাজিলের হয়ে বিশ্বকাপ জয় করে ফুটবল ইতিহাসে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন তিনি।

পেলের উল্লেখযোগ্য রেকর্ডগুলো:

* পেলের বয়স যখন মাত্র ১৫, তখন ব্রাজিলের ক্লাব সান্তোসে যোগ দিয়েছিলেন। যে ক্লাবে ১৮ বছর কাটিয়েছিলেন। জিতেছিলেন সব ট্রফি।

* কনিষ্ঠতম খেলোয়াড় হিসেবে ফুটবল বিশ্বকাপ জিতেছিলেন পেলে। ১৯৫৮ সালে প্রথম বিশ্বকাপ জিতেছিলেন ফুটবল সম্রাট। সুইডেনকে ফাইনালে ৫-২ গোলে হারিয়েছিল ব্রাজিল। দুটি গোল করেছিলেন স্বয়ং পেলে। সেইসময় তার বয়স ছিল ১৭ বছর ২৪৯ দিন।

* সান্তোস, ব্রাজিল ও নিউইয়র্ক কসমসের হয়ে মোট ৪০ ট্রফি জিতেছেন পেলে। তিনি ও ফ্রাঞ্জ বেকেনবাওয়ার মিলে ফুটবলের ভিত গড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। উয়েফার সভাপতি থাকতে মিশেল প্লাতিনি একটা মন্তব্য করেছিলেন, ‘ফুটবলার পেলে ও মানুষ পেলে। কিন্তু পেলে যখন ফুটবল খেলেছেন তখন তিনি ঈশ্বর হয়ে উঠেছেন।

আসল নাম এডসন আরান্তেস দি নাসিমেন্তো। ডাকনাম ছিল ‘ডিকো’। কিন্তু তাঁকে ‘পেলে’ নামেই চিনল বিশ্ব। ছবি: এএফপি

* ১৯৫৮, ১৯৬২ এবং ১৯৭০- এই তিনবার বিশ্বকাপ জিতেছেন পেলে। বিশ্বের আর কোনো খেলোয়াড়ের এই রেকর্ড নেই। ১৯৫৮ সাল এবং ১৯৭০ সালের ফাইনালে গোলও করেছিলেন পেলে।

তিনটি বিশ্বকাপ হাতে ব্রাজিল কিংবদন্তী।

* ব্রাজিলের জার্সিতে মোট ৯২ ম্যাচে ৭৭ গোল করেছিলেন পেলে। যা দীর্ঘ দিন ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড হয়ে ছিল। সবশেষ কাতার বিশ্বকাপেই রেকর্ডটি ভেঙে দেন নেইমার।

* বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করার রেকর্ডও তৈরি করেছিলেন পেলে। ১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপে ওয়েলসের বিরুদ্ধে গোল করেছিলেন। সেই সময় তার বয়স ছিল ১৭ বছর ২৩৯ দিন। ওই গোলের সুবাদেই ম্যাচ জিতেছিল ব্রাজিল।

* বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে হ্যাটট্রিকেরও নজির গড়েছিলেন পেলে। ১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করেছিলেন ‘ব্ল্যাক পার্ল’। সেইসময় তার বয়স ছিল ১৭ বছর ২৪৪ দিন।

এখনকার তরুণরা লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দীর্ঘ ক্যারিয়ার এবং গোল ও রেকর্ড নিয়ে পেলের শ্রেষ্ঠত্বকে প্রশ্ন করেন। কিন্তু ডিয়েগো ম্যারাডোনা, আলফ্রেডো ডি স্টেফানো ও ইয়োহান ক্রুইফদের নিয়ে সেভাবে কথা হয় না, যাঁরা পেলেকে সত্যিকারের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :