প্রাথমিকের আবেদনে ভুল করলে সংশোধনের সুযোগ চালু

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:59 PM, 17 November 2020
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষাঃ ২৬দিনে সিলেবাস শেষ করার সহজ কৌশল

তিন সপ্তাহে ৭ লাখের উপর আবেদন জমা হয়েছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে। এসব প্রার্থীদের অনেকেই আবেদনের সময় ভুল করে তা সংশোধন করতে না পেরে হতাশায় পড়েছে। অনেকে টেলিটকে ফোন করে সাহায্য চাইছে আবার অনেকে জেলা শিক্ষা অফিসে যোগাযোগ করছে। চাকুরী প্রার্থীদের এই বিড়ম্বনা দূর করতে আবেদনের ওয়েবসাইটে কারেকশন

অপশন যুক্ত করা হয়েছে। ফলে এখন যে কোন ভুল করে আবেদন সম্পন্ন করলে কারেকশন অপশনে গিয়ে সংশোধন করা সুযোগ থাকছে। এবিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মনসুরুল আলম বলেন, অনলাইনে শিক্ষক নিয়োগের আবেদনে অনেক টেকনিক্যাল কারনে অনেক ভুল ধরা পড়েছে। সেসব ভুলত্রুটি দূর করতে কারেকশন অপশন যুক্তকরা হয়েছে।প্রার্থী সেই

লিংকে প্রবেশ করে অভিযোগ বা তার সমস্যা উল্লেখ করে সমাধান করতে পারবে। তিনি আরো বলেন, আবেদন ফি জমা দেওয়ার পরও চাইলে প্রার্থী তার তথ্য সংশোধন করতে পারবেন। ফলে প্রার্থীকে আবেদন নিয়ে কোন ঝামেলায় পড়তে হবে না। আগামী ২৪ নভেম্বর রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।আবেদন কারীর বয়স ২৫ মার্চ ২০২০ তারিখের মধ্যে ৩০

বছরের কম হতে হবে। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধিদের ক্ষেত্রে ৩২ বছর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। শিক্ষাগত যোগ্যতায় যেকোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রী সম্পন্ন করতে হবে। বর্তমানে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন ১৩ তম গ্রেডে ১১০০০- ২৬৫৯০ টাকা। বেতন বৃদ্ধি ও গ্রেড আগানোর কারনে তরুন তরুনীদের চাহিদার ক্ষেত্রে প্রাথমিক শিক্ষক আগ্রহের স্থান দখল করেছে।

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :