প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে কোটা বাতিল চেয়ে রিট

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:37 PM, 17 November 2020

সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে কোটা বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। আজ সোমবার চাকরী প্রার্থী তারেক রহমানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী একলাস উদ্দিন ভুঁইয়া এই রিট দায়ের করেন। রিট আবেদনে বলা হয়েছে গত ১৮ অক্টোবর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর বিভিন্ন গনমাধ্যমের মাধ্যমে জানা

যায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩৫ হাজারের অধিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। প্রাথমিক ও গনশিক্ষা অধিদপ্তরের পক্ষ হতে বলা হয় প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে ৬০ শতাংশ নারী কোটা, ২০ শতাংশ পোষ্যকোটা রাখা হয়েছে। কিন্তু ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় ১৩ তম গ্রেড পর্যন্ত সব ধরনের কোটা বাদ দিয়ে মেধার মাধ্যমে নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি

করে। রিটকারী আইনজীবী একলাছ উদ্দিন ভুঁইয়া বলেন, যারা প্রাথমিকে চাকরি করেন তাদের সন্তানদের জন্য ২০ শতাংশ পোষ্য কোটা রাখা হয়েছে। কিন্তু অনগ্রসর ও প্রতিবন্ধিদের জন্য কোন কোটা রাখা হয়নি। যা সমাজের নিন্মশ্রেনীর পেশাজীবীদের সন্তানদের সাথে বৈষম্যমুলক আচরন। রিটে মন্ত্রীপরিষদ সচিব, শিক্ষামন্ত্রনালয়ে জ্যোষ্ঠ সচিব, জনপ্রশাসন

মন্ত্রনালয়ের জ্যোষ্ঠ সচিব, প্রাথমিক ও গনশিক্ষা অধিদপ্তরের সচিব ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে বিবাদী করা হয়েছে। উল্লেখ্য- গত ১৮ অক্টোবর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শুন্যপদ ও প্রাক প্রাথমিকে ৩৫ হাজারেরও অধিক শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। গত ৩ সপ্তাহে প্রায় ৭ লাখ আবেদন জমা হয়েছে। আগামী ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :