প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ১৮ জুনের মধ্যে দ্বিতীয় ধাপে উত্তীর্ণদের কাগজপত্র জমা

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  06:11 PM, 10 June 2022
ব্রেকিং নিউজঃ বদলে যাচ্ছে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা পদ্ধতি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের দ্বিতীয় ধাপের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নির্দিষ্ট কাগজপত্র সত্যায়িত করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দিতে বলা হয়েছে। এসব কাগজপত্র জমা দিয়ে শিক্ষা অফিস থেকে স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে প্রার্থীদের। আগামী ১৮ জুনের মধ্যে নিজ নিজ জেলার প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ে কাগজপত্র জমা দিতে দ্বিতীয় ধাপে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের দ্বিতীয় ধাপের ফল প্রকাশ করা হয়। দ্বিতীয় ধাপে ৫৩ হাজার ৫৯৫ জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। ফল প্রকাশের পর লিখিত প্রার্থীদের দেয়া নির্দেশনায় বিষয়টি জানিয়েছে অধিদপ্তর।

যেসব কাগজপত্র জমা দিতে হবে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের :

১ . মনোনীত প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনের আপলোড করা ছবি
২. আবেদনের কপি
৩. লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র
৪. নাগরিকত্ব সনদ
৫. স্থায়ী ঠিকানার স্বপক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বা ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সনদপত্র
৬. জাতীয় পরিচয় পত্র
৭. শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ
৮. প্রযোজ্য ক্ষেত্রে পোষ্য সনদ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

এসব কাগজপত্রের ফটোকপি ৯ম গ্রেডের গেজেটেড কর্মকর্তার মাধ্যমে সত্যায়িত করে আগামী ১৮ জুনের মধ্যে (অফিস চলাকালীন) স্ব স্ব জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে আবশ্যিকভাবে জমা দিয়ে প্রাপ্তি স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে দ্বিতীয় ধাপে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের।

মৌখিক পরীক্ষায় দেখাতে হবে মূল কপিও :

অধিদপ্তর আরও জানিয়েছে, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে সব সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি জমা দেয়ার সময় ওই কাগজপত্রের মূল কপি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে প্রদর্শন করতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীরা ১৮ জুনের মধ্যে কাগজপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হলে তাদের মৌখিক পরীক্ষার কার্ড ইস্যু করা হবে না।

মৌখিক পরীক্ষার সময় সব সনদপত্র, প্রাপ্তি স্বীকারপত্র ও অন্যান্য কাগজপত্রের মূল কপি প্রার্থীকে সঙ্গে আনতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার তারিখ পরবর্তীতে জানানো হবে এবং তা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে (WWW.dpe.gov.bd) প্রকাশ করা হবে।

দ্বিতীয় ধাপের লিখিত পরীক্ষা গত ২০ মে ২৯টি জেলায় অনুষ্ঠিত হয়। মোট পরীক্ষার্থী ছিল ৪ লাখ ৬৬ হাজার ১০০ জন। দ্বিতীয় ধাপে ৭ জেলার সবকয়টিতে এবং ২২ জেলার আংশিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিলো।

আপনার মতামত লিখুন :