প্রাথমিক শিক্ষকদের প্যানেল দাবি, যা বললেন গণশিক্ষা সচিব

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:23 AM, 16 October 2020

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে বেশ কিছুদিন আন্দোলন করছে প্যানেল প্রত্যাশীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সামনে তৃতীয় দিনের মতো আন্দোলন করেন তারা। পরে একপর্যায়ে পুলিশ তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে।প্রাথমিক শিক্ষকদের এ দাবি নিয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম আল হোসেনের সঙ্গে কথা বলে

বাংলাদেশ জার্নাল। তিনি বলেন, ‘প্যানেলভুক্ত শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ নিয়ে সরকারের কোনো চিন্তাভাবনা নেই। বিধিমালা অনুযায়ী নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্য ব্যক্তিদের মধ্য থেকে নিয়োগ দেয়া হবে।’ জানা যায়,

সারাদেশে নতুন করে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এসব পদের মধ্যে সাড়ে ২৫ হাজার প্রাক-প্রাথমিকের পদ নতুন সৃজন করা হয়েছে। বাকি প্রায় সাত হাজার বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন করে শূন্য হয়েছে। সেসব পদে বর্তমানে নিয়োগ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। নিয়োগ বিধিমালা অনুযায়ী পদ সৃজন হলে সেখানে নতুন করে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে পরীক্ষার

মাধ্যমে নিয়োগ দিতে হবে। আকরাম আল হোসেন আরও বলেন, ‘বিধিমালা অনুযায়ী নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি পরিষ্কার করতে আমরা ইতোমধ্যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছি। সেখানে এ সংক্রান্ত সব কিছু পরিষ্কার করে উল্লেখ করা হয়েছে। নিয়োগ পরীক্ষা থেকে

বাদ পড়া প্রার্থীদের একটি গ্রুপ টাকা তুলে আন্দোলন শুরু করেছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগ পেতে হলে সব পরীক্ষায় যোগ্যতা প্রমাণ করে নিয়োগ পেতে হবে, প্যানেলে নিয়োগ দেয়া হবে না।’ অন্যদিকে নতুন করে আন্দোলনের হুশিয়ারি

দিয়েছে প্রাথমিকে প্যানেল প্রতাশীরা।  তারা জানান, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা বাড়ি ফিরে যাবেন না। এজন্য তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তথ্যসূত্রঃ বাংলাদেশজার্নাল

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :