বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিলেন চবির শিক্ষার্থী সালাহ উদ্দিন

 বেকার জীবন
প্রকাশিত :  07:23 AM. 22 December 2021

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) থেকে এই প্রথম কোন শিক্ষার্থী বাংলা চ্যানেল সাঁতরে পাড়ি দেওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন। ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. সালাহ উদ্দিন। আজ সোমবার (২০ ডিসেম্বর) ‘১৬তম ফরচুন বাংলা চ্যানেল সাঁতার ২০২১’ এ কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন পর্যন্ত বিস্তৃত বিশাল জলপথ সাঁতরে পার হন সালাহ উদ্দিন। ষড়জ অ্যাডভেঞ্চার ও এক্সটিম বাংলা যৌথভাবে এই সাঁতার প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে।

এদিকে, একই চ্যানেল সাঁতরে সম্পন্ন করার অপেক্ষায় রয়েছেন চবির আরও ২জন শিক্ষার্থী। তারা হলেন শফিউল হাসান ও উজ্জ্বল চৌধুরী। এই তিনজনের মধ্যে পালি বিভাগের উজ্জ্বল ছাড়া বাকি দুইজন স্পোর্টস সায়েন্স বিভাগের ছাত্র।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, এবারের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন মোট ৮০ জন প্রতিযোগী। এতে চবির সালাহ উদ্দিন ৫ম স্থান অর্জন করেছেন।সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে সাঁতার শুরু করে দুপুর ৩টা ১৬ মিনিটে সালাহ উদ্দিন ১৬ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ এ চ্যানেলটি পাড়ি দেন। এই চ্যানেল পাড়ি দিতে তিনি সময় নিয়েছেন মোট চার ঘণ্টা ৩১ মিনিট।

সালাহ উদ্দিনের বন্ধু মিঠুন বলেছেন, আমি সালাহ উদ্দিনের সঙ্গেই আছি। মাত্রই সাঁতার শেষ করলো সে। আমরা এখানকার রেকর্ড ঘেঁটে দেখেছি, এর আগে আর কোনো চবিয়ান বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেননি। সালাহ উদ্দিনই প্রথম।এছাড়া, সালাহ উদ্দিনের চেয়ে বেশি সময় নিয়ে চ্যানেল পাড়ি দিয়েছেন চবির সাবেক এক শিক্ষার্থী। তিনি পরিসংখ্যান বিভাগের ছাত্র ছিলেন।

উল্লেখ্য, জেলার টেকনাফের শাহ পরীর দ্বীপ থেকে সেন্টমার্টিন পর্যন্ত এই বাংলা চ্যানেলের দূরত্ব প্রায় ১৬ দশমিক ১ কিলোমিটার। এই দীর্ঘ বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার জন্য এর আগে দুই দফা বাছাই পর্বে অংশগ্রহণ করে তিনজন শিক্ষার্থী মনোনীত হন। এরপর অবশেষে সালাহ উদ্দিন সাঁতরে এ চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার কীর্তি গড়লেন। তবে, শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চবির বাকি দুই শিক্ষার্থী এখনও তাদের সাঁতার সম্পন্ন করেননি। এই সাঁতার প্রতিযোগিতা ২০০৬ সাল থেকে আয়োজন করা হচ্ছে। সূত্রঃ দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ