শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২২ হাজার শূন্যপদের তথ্য পেয়েছে এনটিআরসিএ

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  01:00 AM, 28 October 2020
শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২২ হাজার শূন্যপদের তথ্য পেয়েছে এনটিআরসিএ

সারাদেশের স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২২ হাজারেরও বেশি শূন্যপদের তথ্য পেয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এই তালিকা যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে। যাচাই শেষ হলে শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির

ওপর। একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা জানান এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান মো. আকরাম হোসেন। জানা গেছে, চলতি বছরের মার্চে তৃতীয় চক্রের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার প্রস্তুতি ছিল এনটিআরসিএ’র। এ লক্ষ্যে এনটিআরসিএ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শূন্য হওয়া পদের তালিকা সংগ্রহ করেছিল। গত ফেব্রুয়ারিতে ই রিকুইজিশন শেষ হওয়ার পর শূন্যপদের তথ্য ছিল ৫৯

হাজারের বেশি। কিন্তু যাচাইয়ে সে সংখ্যা কমে ৫৭ হাজারের কিছু বেশি হয়। তবে দেশের সব জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের পাঠানো তালিকা অনুযায়ী এই সংখ্যা বর্তমানে ২২ হাজারের কিছু বেশি। এ প্রসঙ্গে মো. আকরাম হোসেন বলেন, আমাদের কাছে সারা দেশের জেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা শূন্যপদের তালিকা পাঠিয়েছেন। সেই সংখ্যা ২২ হাজারের কিছু বেশি হবে। এটি এখন যাচাই-

বাছাইয়ের কাজ চলছে। যাচাই শেষে নিবন্ধিত প্রার্থীদের কাছ থেকে আবেদন চেয়ে তৃতীয় চক্রের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। শূন্যপদের সংখ্যা আরও বাড়বে জানিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সব পদ একসাথে খালি হয় না। প্রায় প্রতিদিনই শূন্যপদের সৃষ্টি হয়। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা সেই তালিকা আমাদের কাছে পাঠালে তখন আমরা সে অনুযায়ী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

করব। তৃতীয় চক্রের গনবিজ্ঞপ্তি কবে প্রকাশ করা হতে পারে জানতে চাইলে মো. আকরাম হোসেন বলেন, দেশে এখন মহামারি চলছে। এই পরিস্থিতিতে সব কিছুই থমকে গেছে। এমন অবস্থায় তৃতীয় চক্রের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা সম্ভব হবে না। আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। সার্বিক অবস্থার উন্নতি হলে তবেই তৃতীয় চক্রের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। উল্লেখ্য, বেসরকারি

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এন্ট্রি লেভেলে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ করে এনটিআরসিএ। বাছাই করা প্রার্থীদের আর কোনও পরীক্ষা দিতে হয় না। ইতোমধ্যে ২০১৬ ও ২০১৯ সালে দুইটি চক্রে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এন্ট্রি লেভেলের শিক্ষক নিয়োগে প্রার্থী সুপারিশ করেছে এনটিআরসিএ। তথ্যসূত্রঃ দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :