সেফুদার সেই জমিতে হচ্ছে কলেজ, উদ্বোধন করলেন ডা. জাফরুল্লাহ

বেকার জীবনবেকার জীবন
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:54 PM, 02 January 2021

চাঁদপুরের শাহরাস্তির চেড়িয়ারা গ্রামের অস্ট্রিয়া প্রবাসী ও সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত ব্যক্তিত্ব সেফাতুল্লাহ ওরফে সেফুদার জমিতে গড়ে তোলা হচ্ছে একটি কলেজ। প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের কর্মমুখী শিক্ষা দেওয়ার উদ্দেশে সেফুদার মায়ের নামেই এ কলেজটি প্রতিষ্ঠা করার কথা বলা হচ্ছে। তবে কলেজের সাইনবোর্ডের উপরেই লেখা সেফুদার উক্তি ‘লাভ ইজ পাওয়ার’।

শুক্রবার (১ জানুয়ারি) প্রস্তাবিত হাসমতেন্নেচ্ছা হাসু সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি কলেজ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের স্থান পরিদর্শন করে তা উদ্বোধন করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। যদিও এক মামলায় ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর ওই জমি ক্রোক করার নির্দেশ দেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনাল। উদ্বোধনকালে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বর্তমান সময়ের

চাহিদা অনুযায়ী বেকার সমস্যা সমাধানে গ্রামগঞ্জে ভোকেশনাল কারিগরি স্কুল-কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গণমাধ্যম উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ডা. রৌশন জাহান পিংকি, শাহরাস্তি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ুন কবির, সমাজসেবক ও রাজনীতিবিদ রেদোয়ান

হোসেন সেন্টুসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। সেফুদার ভাই বড় ভাই ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শামছুল হুদা মজুমদার বলেন, বিশ্ব শান্তি মিশনের সহযোগিতা ও সৌজন্যে কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। তার ভাষ্যমতে, কলেজটি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী পরিদর্শন করেছেন এবং উদ্বোধনও করেছেন। এটি এখন আপাতত একটি টিনের ঘর। তিনি বলেন, কবে

পাকা হবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। আমার ছোট ভাইয়ের প্রায় ৩০ শতাংশ জমিতে কলেজ হচ্ছে। পরবর্তীতে আরও জমির প্রয়োজন হলে আমাদের জমি দেবো। কলেজ পরিচালনার জন্য আর্থিক জোগান দেবে আমার ভাইয়েরা। এছাড়া বিশ্ব শান্তি মিশন থেকেও সহযোগিতা পেতে পারি। তিনি বলেন, এখানে গণস্বাস্থ্য শিক্ষাকেন্দ্র করারও আহ্বান জানিয়েছি। সেফুদার জমি ক্রোক

সম্পর্কে তিনি বলেন, কে ক্রোক করবে? মামলাতো নেই। কোনও ক্রোকও হয়নি। এটি একটি ভাওতাবাজি। ক্রোক সম্পর্কিত কোনও নোটিশও পাইনি। তিনি বলেন, ছাত্রলীগের কোনও এক নেতা আদালতে একটি আবেদন করেছিল। কিন্তু পরবর্তীতে মামলার কার্যক্রমে তাকে আর পাওয়া যায়নি।

তিনি জানান, আগামী বছর যে এসএসসি পরীক্ষা হবে তার রেজাল্ট হলে এখানে এইচএসসি পর্যায়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। তবে কলেজটি এখনো অনুমোদন হয়নি। ভর্তির আগে অনুমোদন নেওয়া হবে।

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :