২০২৪ সাল থেকে মাধ্যমিকে আর বিভাগ থাকছে না

 বেকার জীবন
প্রকাশিত :  06:32 AM. 14 September 2021

২০২৩ খ্রিষ্টাব্দ থেকে নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন শুরু হবে। এ শিক্ষাক্রমে মাধ্যমিক পর্যায়ে শুধু দশম শ্রেণিতে একটি ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যয়ে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে একটি পরীক্ষা হবে। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির ফল নিয়ে উচ্চমাধ্যমিকের চূড়ান্ত ফল নির্ধারণ হবে। ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ৮ম ও ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা নতুন শিক্ষাক্রমের আওতায় আসবে।

সে হিসেবে আগামী ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের অর্থাৎ নবম শ্রেণির বিভাগ বিভাজন থাকছে না। আর ২০২৫ খ্রিষ্টাব্দের মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষার্থী নতুন শিক্ষাক্রমে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে।সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) গণভবনে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখার খসড়া উপস্থাপনা শেষ সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, শিক্ষার্থীদের জন্য আনন্দঘন শিক্ষা নিশ্চিত করতে এ শিক্ষাক্রম তৈরি করা হয়েছে। এ শিক্ষাক্রম পাইলটিং হবে আগামী বছর থেকে শুরু হবে। ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দের ১ম ও ২য় শ্রেণি ও ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন শুরু হবে। ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দের ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণি এবং ৮ম ও ৯ম শ্রেণি এ শিক্ষাক্রমের আওতায় আসবে। এ শিক্ষাক্রমের আওতায় ২০২৫ খ্রিষ্টাব্দের মধ্যে সব শিক্ষার্থীকে নিয়ে আসা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ শিক্ষাক্রম অনুমোদন দিয়েছেন।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, নতুন শিক্ষাক্রম অনুসারে নবম দশম শ্রেণিতে বিভাগ থাকবে না। শিক্ষামন্ত্রীর দেওয়া রূপরেখা অনুসারে আগামী ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের বিভাগ বিভাজন উঠে যাচ্ছে। ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দে ৯ম শ্রেণির ও ২০২৫ খ্রিষ্টাব্দে দশম শ্রেণির বিভাগ বিভাজন উঠছে। আর ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নতুন কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে। ২০২৪ খ্রিষ্টব্দ থেকে তাই জেএসসি পরীক্ষা হবে না।

মন্ত্রী বলেন, প্রতিক্লাস শেষেই পরীক্ষা হবে। কিন্ত পাবলিক পরীক্ষা না। ১ম থেকে ৩য় শ্রেণি ছাড়া সব ক্লাসের শেষেই মূল্যায়ন হবে। দশম শ্রেণির শেষে একটি পাবলিক পরীক্ষা হবে এবং একদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির পর পরীক্ষা হবে। এসময় শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা ও মূল্যায়ন এক করে দেখলে হবে না। সূত্রঃ দৈনিক শিক্ষা

 আমাদের বিসিএস গ্রুপে যোগ দিন

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ